শ্রীশ্রী কৈবল্যশক্তি

শ্রীশ্রী কৈবল্যশক্তি

কৈবল্যধাম আশ্রমের পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত এই বিরাট বটবৃক্ষ, শ্রীশ্রী ঠাকুর যার নামকরণ করেন “কৈবল্যশক্তি”।

কৈবল্যশক্তির মাহাত্ম্য সম্পর্কে শ্রীমুখে ঠাকুর যাহা বলিয়াছেন তাহা নিম্নে বর্ণিত হইল –

 . . . . . . . . . . কৈবল্যনাথ বলিতে গেলে কৈবল্য শক্তিকেও বলিতে হইবে। ইহাতে যে কোন দেবতারই অর্চ্চনা হউক না। সেই সেই দেবতার ঐ কৈবল্যনাথেরই হইবে। যে চিত্রপট আছে সেখানে মঙ্গলঘট বসাইয়া তাহারই নিকট যাহার যে বিধান বিধি আছে সেই বিধি দৃষ্টেই পূজা হইবে। ইহার মধ্যে সংশয় কি হইতে পারে। ঐ চিত্রপটেও দেবদেবীর অর্চ্চনা বিধিপূর্ব্বক করিলে হইতে পারে। বিধি বিধানে আছে ঘট পট হইতে পারে। মহাদেবীর ধ্যানদি সাঙ্গোপাঙ্গ সহিত যে পূজা বিধান আছে তাহা ঐ পটেও হয়। ঐ পটে যদি জীবের প্রাণীস্বত্ত্বার রূপ বলিয়া সংস্কার থাকে তাহা হইলে কৈবল্য অর্চ্চনা হইবে না। ঐপটকেও কৈবল্যই প্রকাশ জানিয়া উহার সমস্ত বিভূতি আর জগতে ত্রিধা বিকাশের দেবদেবী জানিবেন  . . . . . . . . . . ।

error: Content is protected !!